লতিফা আকন্দের স্মরণ সভা


আমাদের সকলের শ্রদ্ধেয় ও প্রাণপ্রিয় প্রফেসর লতিফা আকন্দ আপা ইহজগতের মায়া কাটিয়ে পরপাড়ে পাড়ি জমিয়েছেন গত বুধবার ৩ ডিসেম্বর, ২০১৪ রাত ১ টায় (ইন্না লিলাহে ওয়া ইন্না ইলাইহে রাজিউন)। তিনি ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের অধ্যাপক। এছাড়াও তিনি উইমের ফর উইমেন, ঊষা, নারী মৈত্রী, নিজেরা করি, ডেমোক্রেসি ওয়াচসহ বিভিন্ন বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থার প্রতিষ্ঠানের সদস্য। এছাড়াও তিনি বিভিন্ন নারী সংগঠনের সাথে সম্পৃক্ত ছিলেন। নারী শিক্ষা ও উন্নয়নে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ন অবদানের স্বীকৃতি স্বরুপ ২০০৭ সালে তিনি রাষ্টীয় রোকেয়া পদকে ভূষিত হন।

নারীগ্রন্থ প্রবর্তনা সহ বাংলাদেশের বিভিন্ন নারী সংগঠন ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৪ তারিখ(শনিবার) বিকাল ৩টা থেকে ৫টা পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বোপার্জিত স্বাধীনতা (ডাস এর সামনে) সকলের শ্রদ্ধেয় ও প্রাণপ্রিয় প্রফেসর লতিফা আকন্দকে স্মরণ করে।

গত বুধবার ৩ ডিসেম্বর, ২০১৪ রাত ১ টায় (ইন্না লিলাহে ওয়া ইন্না ইলাইহে রাজিউন)। তিনি ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের অধ্যাপক। এছাড়াও তিনি উইমের ফর উইমেন, ঊষা, নারী মৈত্রী, নিজেরা করি, ডেমোক্রেসি ওয়াচসহ বিভিন্ন বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থার প্রতিষ্ঠানের সদস্য। নারী শিক্ষা ও উন্নয়নে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ন অবদানের স্বীকৃতি স্বরুপ ২০০৭ সালে তিনি রাষ্টীয় রোকেয়া পদকে ভূষিত হন।


latifa


নারীগ্রন্থ ও উবিনীগের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক ছল গভীর ও আত্মিক। তিনি আমামদের সকল কর্মাকাণ্ডে সময় ও সুযোগ থাকলে অংশগ্রহণ করতেন। নানান ভাবে তিনি আমামদের অনুপ্রেরণা হয়ে ছিলেন। তাঁকে হারানো নারীগ্রন্থ ও উবিনীগের জন্য খুব বড় ধরণের ক্ষতি।

তার স্মরণসভায় সূচনা বক্তব্য রাখেন উইমেন ফর উইমেনের প্রেসিডেন্ট জাকিয়া কে হাসান। স্মরণ সভা পরিচালনা ও সভাপতিত্ব করেন অধ্যাপক জাহানারা হক। প্রফেসর লতিফা আকন্দ সম্পর্কে স্মৃতিচারণ করেন:

আলবাব আকন্দ (স্বপন) প্রফেসর লতিফা আকন্দ এর ছেলে, ডেমোক্রেসি ওয়াচ এর তালেয়া রহমান;

অধ্যাপিকা সুলতানা জামান; দ্বীপ শিখার লুবনা মরিয়ম; ঢাকা বিশ্ব বিদ্যালয়ের প্রো-ভিসি নাসরিন আহমেদ;

আইন ও সালিশ কেন্দ্রের অধ্যাপক হামিদা হোসেন; উবিনীগ এর নির্বাহী পরিচালক ফরিদা আখতার;

দি হাঙ্গার প্রজেক্টের তাজিমা হোসেন মজুমদার; অনন্যার এডিটর তাসমিমা হাসান; প্রফেসর নাজমা সিদ্দিক;

নাসিমা আকতার জলি এবং নিজেরা করি সংগঠনের বন্যা লোহানী।

মাহমুদা নার্গিস।


ছাপবার জন্য এখানে ক্লিক করুন


৫০০০ বর্ণের অধিক মন্তব্যে ব্যবহার করবেন না।