রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থাপনা উপেক্ষিত স্বাস্থ্য বাজেট


রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থাপনা উপেক্ষিত স্বাস্থ্য বাজেট এ বিষয়টি নিয়ে স্বাস্থ্য আন্দোলন ও উবিনীগের পক্ষ থেকে ২৬ জুন, ২০১৬ তারিখে সকাল ১১:৩০ মি: জাতীয় প্রেসক্লাবের তৃতীয় তলার হলরুমে এক মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়। মতবিনিময় সভায় সভা প্রধানের দায়িত্ব পালন করেন ডা. জাফরুল্লাহ্ চৌধুরী, ট্রাস্টি গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র ট্রাস্ট। লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন পলাশ বড়াল সদস্য স্বাস্থ্য আন্দোলন। সভাটি সঞ্চালনা করেন সীম দাস সীমু, পরিচালক, উবিনীগ। সভায় উপস্থিত ছিলেন, ফরিদা আখতার, যুগ্ম আহ্বায়ক, স্বাস্থ্য আন্দোলন, ডা. মোঃ আবু সাইদ,ডক্টর ফর হেলথ্ এন্ড এনভারনমেন্ট, রোকেয়া বেগম, ড. এম এ সোবহান, প্রেসিডেন্ট, বীজবিস্তার ফাউনডেশন, সৈয়দ মাহবুবুল আলম, সদস্য স্বাস্থ্য আন্দোলন, সৈয়দা অনন্যা রহমান, এ্যাডভোকেসি অফিসার, ডাব্লিউবিবি ট্রাস্ট, জিয়ারুল ইসলাম, নির্বাহী পরিচালক, ইনোভেশন ইন সোসাল ডেভেলপমেন্ট।

মতবিনিময় সভায় বক্তারা বলেন বাজেটে স্বাস্থ্য খাতে বরাদ্দ বৃদ্ধি যথেষ্ট নয়, চাই জনগণের স্বাস্থ্য সেবার চাহিদা মেটানো ও রোগ প্রতিরোধ করার ব্যবস্থা। সভায় রোগ প্রতিরোধের জন্য নীতিমালা করার আহ্বান জানানো হয়। এবারের বাজেটে বরাদ্দ বাড়ানো হয়েছে কিন্তু এইগুলি বেশির ভাগ ব্যয় করা হচ্ছে নির্মান ও ক্রয়ে যা স্বাস্থ্য সেবা প্রদানের জন্য মূল বিষয় নয়। অযৌক্তিক ও অপ্রয়োজনীয় ওষুধের ব্যবহার সম্পর্কে উদ্বেগ জানানো হয়।

এই সভায় একটি প্রধান দাবি হিসেবে আসে যে, উপজেলা পর্যায়ে স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে শক্তিশালী করতে হবে এবং স্থানীয় সরকারকে ক্ষমতা দিতে হবে। যেন স্থানীয় পর্যায়ে স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে উন্নয়ত করা যায়। ইউনিয়ন পর্যায়ে মহিলা ডাক্তার নিয়োগ দেয়া নারী স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত জরুরী।

আগামি প্রজন্মের স্বাস্থ্য রক্ষার জন্য এবং উন্নত জাতি হিসেবে গড়ে তুলতে হলে স্বাস্থ্য বাজেটে রোগ প্রতিরোধের জন্য ২৫% ব্যয় করতে হবে।

জাফরুল্লা

মিটিং-এ অংশগ্রহণকারী


ছাপবার জন্য এখানে ক্লিক করুন


৫০০০ বর্ণের অধিক মন্তব্যে ব্যবহার করবেন না।